দেশ

সিরাজগঞ্জের যমুনায় নির্মাণ হচ্ছে বঙ্গবন্ধু রেলসেতু

খন্দকার মোহাম্মাদ আলী, সিরাজগঞ্জ ২৮ নভেম্বর, ২০২০, ১৭:৫৭:০৭

  • ছবি : নিউজজি

সিরাজগঞ্জ: দীর্ঘ প্রতিক্ষার পর যমুনা নদীতে নির্মিত হচ্ছে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব রেলসেতু। বঙ্গবন্ধু সেতুর ৩০০ মিটার উজানে হবে দেশের সব থেকে বড় ডেডিকেটেড ডাবল লেনের এই রেলসেতু।

রেলমন্ত্রী নূরুল ইসলাম সুজন এ তথ্যটি নিশ্চিত করে বলেন, আগামীকাল ২৯ নভেম্বর ভিডিও কনফারেন্স-এর মাধ্যমে এই রেলসেতুর ভিক্তিপ্রস্থর স্থাপন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এই সেতুটি চালু হলে রেল যোগাযোগের ক্ষেত্রে একটি মাইল ফলক তৈরি হবে বলে জানান তিনি। এদিকে, রেলসেতুটি নির্মাণ হলে যাত্রী সেবার মান বৃদ্ধির পাশাপাশি সিরাজগঞ্জ তথা উত্তরবঙ্গের ব্যবসা-বাণিজ্যের প্রসার ঘটবে বলে ধারণা করেন স্থানীয়রা।

জানা যায়, ১৯৯৮ সালে বঙ্গবন্ধু সেতু চালুর মধ্য দিয়ে রাজধানী ঢাকার সাথে উত্তর ও দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের রেল যোগাযোগ চালু হয়। প্রথমে ব্রডগেজ ও মিটারগেজের চারটি ট্রেন দৈনিক আটবার পারাপারের পরিকল্পনা ছিল কিন্তু যাত্রীদের চাহিদা বাড়তে থাকায় ট্রেনের সংখ্যা এখন ৩৮টি। বর্তমানে ট্রেনগুলো স্বল্প গতিতে ঝুঁকি নিয়ে পারাপার হলেও সময় আপচয়ের পাশাপাশি ঘটছে সিডিউল বিপর্যয় আর বাড়ছে যাত্রী ভোগান্তি।

ট্রেন যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নতি ঘটাতে বঙ্গবন্ধু সেতুর ৩০০ মিটার উজানে নির্মাণ করা হচ্ছে ৪.৮ কিলোমিটার দৈর্ঘের দেশের সর্ব বৃহৎ ডেডিকেডেট ডাবল লেনের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব রেলসেতু। এই সেতুর উপর দিয়ে একশত কিলোমিটার বেগে দুটি ট্রেন এক সাথে চলাচল করতে পারবে। উন্মুক্ত হবে সকল প্রকার পণ্যবাহী ট্রেন চলাচল। যার ফলে সময় সাশ্রয় হওয়ার পাশাপাশি উত্তরবঙ্গের আর্থ-সামাজিক উন্নয়ন এবং ব্যবসা-বাণিজ্যের প্রসার ঘটবে। সেই সাথে দীর্ঘদিনের ভোগান্তি কমে দ্রুত গন্তব্যে পৌঁছা যাবে বলছেন সাধারণ মানুষ।

রেলমন্ত্রী মো. নূরুল ইসলাম সুজন বলেন, ডাবল লাইন ডুয়েল গেজের এই রেলসেতু হওয়ার পর ক্রসিং ছাড়াই সেতুর উপর দিয়ে একশত কিলোমিটার বেগে একই সাথে দুটি ট্রেন চলাচল করতে পারবে। পাশাপাশি সব ধরনের মালামাল পরিবহন করতে পারবে।

সিরাজগঞ্জ জেলা প্রশাসক ড. ফারুক আহাম্মদ বলেন, রেলসেতু নির্মাণের ফলে একদিকে সময় সাশ্রয়ী হবে এবং ব্যবসা-বাণিজ্যে চাঞ্চল্য ফিরে আসবে। যা দেশের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে।

জাপান এবং বাংলাদেশ সরকারে যৌথ অর্থায়নে ১৬ হাজার সাতশত ৮০ কোটি টাকা ব্যয়ে রেলসেতুটি নির্মাণ হবে। প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করবে জাইকা। ২০২৪ সালের আগস্ট মাসের মধ্যে কাজ সমাপ্ত হবে বলে জানিয়েছেন প্রকল্প সংশ্লিষ্টরা।

নিউজজি/আইএইচ

পাঠকের মন্তব্য

লগইন করুন

ইউজার নেম / ইমেইল
পাসওয়ার্ড
নতুন একাউন্ট রেজিস্ট্রেশন করতে এখানে ক্লিক করুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

copyright © 2021 newsg24.com | A G-Series Company
Developed by Creativeers