বিনোদন

বঙ্গবন্ধুর বায়োপিক: ট্রেইলারে হতাশ মিডিয়া সংশ্লিষ্টরা

নিউজজি প্রতিবেদক  মে ২০, ২০২২, ১৫:২৯:০৯

  • ছবি: ইন্টারনেট

অপেক্ষার পালা শেষ। ফার্স্ট লুক পোস্টারের পর এবার এলো বহুল প্রতিক্ষিত ‘মুজিব: একটি জাতির রূপকার’ সিনেমাটির ট্রেইলার। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে নিয়ে নির্মিত সিনেমাটির ট্রেইলার প্রকাশিত হয়েছে বৃহস্পতিবার (১৯ মে) রাত ১০টায়। ১ মিনিট ৩০ সেকেন্ডের ট্রেইলারে উঠে এসেছে বঙ্গবন্ধুর পুরোজীবনের একঝলক। বায়োপিকের ট্রেইলারটি ৭৫তম কান চলচ্চিত্র উৎসবে উন্মুক্ত করা হয়েছে।

বাংলাদেশ ও ভারত সরকারের যৌথ প্রযোজনায় নির্মিত সিনেমাটি পরিচালনা করেছেন বলিউডের বিখ্যাত নির্মাতা শ্যাম বেনেগাল। শুরু থেকেই সিনেমাটি ঘিরে দেশের মানুষের ব্যাপক আগ্রহ লক্ষ করা গেছে। তবে ট্রেইলার দেখে হতাশ দর্শক ও মিডিয়া সংশ্লিষ্টরা। এ নিয়ে নেটদুনিয়ায় চলছে তুমুল সমালোচনা।

৪০ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত সিনেমাটির ট্রেইলার প্রকাশের পর সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে দেখা যায় সমালোচনার ঝড়। অনেকেই লিখেছেন, বাজেটের তুলনায় সিনেমার মান খারাপ। আবার অনেকেই লিখেছেন, সিনেমার ভিএফক্স-এর কাজ হয়েছে নিম্নমানের। অন্যদিকে, বঙ্গবন্ধুর চরিত্রে আরিফিন শুভকে মানানসই হয়নি বলেও প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন কেউ কেউ।

ট্রেইলারে হতাশ হয়ে দেশের নন্দিত গীতিকবি-সুরকার ও সঙ্গীতপরিচালক প্রিন্স মাহমুদ তার ফেসবুক স্ট্যাটাসে লেখেন, ‘মুজিব, দ্য মেকিং অব এ ন্যাশন’ সিনেমার ট্রেইলার দেখলাম। ভেবেছিলাম রক্তে আগুন জ্বলা জ্বালাময়ী কিছু হবে, আশা করে আছি রিচার্ড এটেল বরের গান্ধীর মতো Mujib-The Making of a Nation একটা মাস্টারপিস হবে। কী বলব বুঝতে পারছি না। বিশাল বাজেট সিনেমার এই ভিএফক্স! শুভকে দেখতে ভালো লাগছে কিন্তু বঙ্গবন্ধুর পরিণত বয়সের চুল আর শুভর ডায়লগ ডেলিভারিটা ঠিক বুঝে উঠতে পারছি না। দয়া করে শুভর ভয়েস আবার ডাব করেন, দয়া করে।

তিনি লেখেন, আমাদের কাছে বিখ্যাত কোনো পরিচালকের চেয়ে বঙ্গবন্ধু অনেক অনেক বড়। বঙ্গবন্ধুর সিনেমা বঙ্গবন্ধুর মতো হতে হবে। ২০০১-এ শ্যাম বেনেগাল সাহেবের জুবাইদার ট্রেইলার এর চেয়ে ভালো ছিল। শ্রদ্ধা রেখেই বলছি- ভুলে গেলে চলে না, শ্যাম বেনেগাল সাহেব অনেক ভালো লাগার কিন্তু তার বয়স হয়েছে। মুম্বাই পরিচালকই যখন নেবেন এই সময়ের কাউকে পাওয়া গেল না? আমাদের দেশের এই প্রজন্মের মেধাবী পরিচালকেরা কেউ ছিলেন না এই ছবির সাথে?

কলকাতার নির্মাতা সৃজিত মুখার্জির কথা উল্লেখ করে প্রিন্স মাহমুদ লেখেন, দেশের জামাই সৃজিতের হাতে দিলেও এর চেয়ে ভালো ট্রেইলার বানায় সামনে দিত। আর কিছু বলব না। সিনেমা মধ্যম মানের হলে এর চেয়ে কষ্টের আর কিছু হবে না। আমার এই চোখের দেখা যেন ভুল হয়। অপেক্ষা করি...।

প্রশ্ন রেখে অভিনেত্রী কুসুম শিকদার লেখেন, গিয়াস উদ্দিন সেলিম বা অমিতাভ রেজা বানাইলে কী সমস্যা ছিল?

সিনেমাটি নিয়ে ফাজলামো হয়েছে উল্লেখ করে অভিনেতা আব্দুল রানা লেখেন, আমলা দিয়ে চলচ্চিত্রের ‘ট’ মারার জ্বলন্ত উদাহরণ হয়ে থাকবে ছবিটা। আমার জাতির পিতাকে নিয়ে এ নামে শতকোটি টাকা যে মারা গেল তার জন্য সংশ্লিষ্ট সবার বিচার চাই। আরেকটা কথা- রওনক হাসান আর জ্যোতিকা জ্যোতির সাথে এ চলচ্চিত্র নিয়ে যে তামাশাটা হয়েছে, সেটা শুধু তাদেরই অপমান ছিল না। সেটা ছিল সামগ্রিকভাবে শিল্পকে অপমান করা। 

তিনি আরো লেখেন, আর এই জঘন্য কাজটি যারা করেছেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে আকুল আবেদন, তাদের চিহ্নিত করে উপযুক্ত শাস্তির আওতায় আনুন। পুনশ্চ: এ অদ্ভুত হাস্যকর বায়োপিকের পরিচালক মহাশয়কে পদ্মায় দুইটা চুবানি দেবার দাবিও জানাই।

অভিনেতা শাহেদ আলী লেখেন, ভাই ট্রেইলার দেখে এত আওয়াজ তোলার কী আছে? পোস্টার দেখেই তো বোঝা গেছে কি হবে জিনিসটা।

কেউ কেউ সিনেমাটির সমালোচনা করে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে লেখেন, এই সিনেমার ট্রেইলার দেখে যেটা মনে হয়েছে, তার চেয়ে দেশে বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে নির্মিত সিনেমা দিগুণ ভালো হয়েছে।

বাংলাদেশের চলচ্চিত্রের ইতিহাসের সবচেয়ে বড় বাজেটের সিনেমা ‘মুজিব: একটি জাতির রূপকার’। সিনেমায় নাম ভূমিকায় অভিনয় করেছেন আরিফিন শুভ, বঙ্গবন্ধুর স্ত্রী ফজিলাতুন নেছা মুজিবের চরিত্রে নুসরাত ইমরোজ তিশা, শেখ হাসিনার চরিত্রে নুসরাত ফারিয়া, তাজউদ্দীন আহমদের চরিত্রে রিয়াজ আহমেদ।

এছাড়া, আরও অভিনয় করেছেন দিলারা জামান, সিয়াম আহমেদ, জায়েদ খান, খায়রুল আলম সবুজ, ফেরদৌস আহমেদ, দীঘি, রাইসুল ইসলাম আসাদ, গাজী রাকায়েত, তৌকীর আহমেদ, মিশা সওদাগরসহ শতাধিক তারকা শিল্পী। ২০২১ সালের শুরুতে সিনেমাটির চিত্র ধারণ শুরু হয়। চলতি বছরেই সিনেমাটি মুক্তি পাওয়ার কথা রয়েছে।

নিউজজি/রুআ

পাঠকের মন্তব্য

লগইন করুন

ইউজার নেম / ইমেইল
পাসওয়ার্ড
নতুন একাউন্ট রেজিস্ট্রেশন করতে এখানে ক্লিক করুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ