ফিচার

চিরস্মরণীয় বিপ্লবী নেত্রী লক্ষ্মী বাঈ

নিউজজি ডেস্ক জুন ১৭, ২০২১, ১৩:১৫:০৬

  • চিরস্মরণীয় বিপ্লবী নেত্রী লক্ষ্মী বাঈ

ঢাকা: ভারতবর্ষের ইতিহাসে বিপ্লবী নেত্রী হিসেবে চিরস্মরণীয় লক্ষ্মী বাঈ। এ ছাড়া তিনি ঝাঁসির রানি বা 'ঝাঁসি কি রানি' হিসেবেও সর্বসাধারণের কাছে ব্যাপকভাবে পরিচিত। ব্রিটিশ শাসনামলে ১৮৫৭ সালের ভারতীয় বিদ্রোহের অন্যতম প্রতিমূর্তি ও পথিকৃৎ হয়ে রয়েছেন তিনি। তার প্রকৃত নাম মনিকর্নিকা ও ডাকনাম মনু। তিনি মহারাষ্ট্রের মারাঠি করাডে ব্রাহ্মণ পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন।

১৮২৭ খ্রিস্টাব্দের ১৯ নভেম্বর কাশি (বারানসি) এলাকায় তার জন্ম। তার বাবার নাম মরুপান্ত তাম্বে ও মা ভাগীরথী বাঈ তাম্বে। ১৮৪২ সালে ঝাঁসির মহারাজা গঙ্গাধর রাও নিওয়াকরের সঙ্গে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন লক্ষ্মী বাঈ। এভাবেই তিনি ঝাঁসির রানি হিসেবে পরিচিতি লাভ করেন। বিয়ের পরই তার নতুন নামকরণ হয় লক্ষ্মী বাঈ।

১৮৫৭ সালের ১০ মে। ওই দিন মিরাটে ভারতীয় বিদ্রোহের সূচনা। ওই সময় লক্ষ্মী বাঈ তার বাহিনীকে নিরাপদে ও অক্ষত অবস্থায় রেখে ঝাঁসি ত্যাগ করাতে পেরেছিলেন। সে সময় সমগ্র ভারতবর্ষে প্রবল গণ-আন্দোলন ছড়িয়ে পড়ে। এই চরম মুহূর্তে ব্রিটিশ কর্তৃপক্ষ অন্যত্র মনোযোগের চেষ্টা চালায়। লক্ষ্মী বাঈ একাকী ঝাঁসি ত্যাগ করেন। ১৮৫৮ সালের ১৭ জুন ফুলবাগ এলাকার কাছাকাছি কোটাহ-কি সেরাইয়ে রাজকীয় বাহিনীর সঙ্গে পূর্ণোদ্যমে যুদ্ধ চালিয়ে শহীদ হন ঝাঁসির রানি।

রানি লক্ষ্মী বাঈ ভারতবর্ষের 'জাতীয় বীরাঙ্গনা' হিসেবে ব্যাপক পরিচিতি পান। তাকে ভারতীয় রমণীদের সাহসের প্রতীক ও প্রতিকল্প হিসেবে চিত্রিত করা হয়েছে। সুভাষ চন্দ্র বসুর নেতৃত্বাধীন আজাদ হিন্দ ফৌজের প্রথম নারী দলের নামকরণ করা হয় রানি লক্ষ্মী বাঈকে স্মরণ করে।

পাঠকের মন্তব্য

লগইন করুন

ইউজার নেম / ইমেইল
পাসওয়ার্ড
নতুন একাউন্ট রেজিস্ট্রেশন করতে এখানে ক্লিক করুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

copyright © 2021 newsg24.com | A G-Series Company
Developed by Creativeers