ফিচার
  >
ইতিহাস ও ঐতিহ্য

রবীন্দ্রনাথের পতিসর কুঠিবাড়ি

নিউজজি ডেস্ক ৮ মে , ২০২১, ১২:১৩:১৩

  • সংগৃহীত

ঢাকা: বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের স্মৃতিকে ধারণ করে আমাদের দেশের যে কটি স্থান আজও ইতিহাসের সাক্ষ্য বহন করছে তারই একটি হলো নওগাঁ জেলার আত্রাই উপজেলার মনিয়ারী ইউনিয়নে অবস্থিত পতিসর কুঠিবাড়ী। 

নওগাঁ শহর থেকে প্রায় ৩৬ কিলোমিটার দক্ষিণে নাগর নদের তীরে পতিসর কুঠিবাড়ী অবস্থিত। পৈত্রিকসূত্রে প্রাপ্ত কালিগ্রাম পরগনার জমিদারী দেখাশোনার জন্য কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর ১৮৯১ সালে সর্বপ্রথম পতিসরে আসেন। 

এই পতিসরে বসেই কবি রচনা করেন 'গোরা' ও 'ঘরে-বাইরে' উপন্যাসের অংশবিশেষ; ছোটগল্প 'প্রতিহিংসা', 'ঠাকুরদা'; 'পূর্ণিমা', 'সন্ধ্যা', 'দুই বিঘা জমি', 'তালগাছ'সহ অনেক কবিতা এবং 'তুমি সন্ধ্যার মেঘমালা', 'বধূ মিছে রাগ করো না', 'তুমি নব রূপে এসো প্রাণে'সহ অনেক গান।

জমিদারী দেখাশোনার জন্য এলেও প্রকৃতি ও মানব প্রেমী কবি অবহেলিত পতিসর এলাকার মানুষের জন্য দাতব্য চিকিত্সালয় ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান প্রতিষ্ঠাসহ অনেক জনহিতৈষী কাজ করেন। পুত্রের নামানুসারে প্রতিষ্ঠা করেন কালীগ্রাম রথীন্দ্রনাথ ইনস্টিটিউট। এ ছাড়া এখানকার কৃষকের কল্যাণে নোবেল পুরস্কারের ১ লাখ ৮ হাজার টাকা দিয়ে তিনি এখানে একটি কৃষি ব্যাংকও স্থাপন করেছিলেন। 

বর্তমানে এই বাড়িটিতে সংরক্ষণ করা হয়েছে কবির ব্যবহৃত জিনিসপত্র যেমন আলমারি, ইজি চেয়ার, আয়না ইত্যাদি। 

এ ছাড়া প্রায় ১০ একর জায়গা নিয়ে দাঁড়িয়ে থাকা এই কুঠিবাড়ির সামনের দিকে থাকা সিংহ দুয়ার এবং এরপরে থাকা প্রশস্ত আঙ্গিনাও পর্যটকদের মনে করিয়ে দেয় কবিগুরুর স্মৃতির কথা। ছবি ও তথ্য – ইন্টারনেট

পাঠকের মন্তব্য

লগইন করুন

ইউজার নেম / ইমেইল
পাসওয়ার্ড
নতুন একাউন্ট রেজিস্ট্রেশন করতে এখানে ক্লিক করুন
copyright © 2021 newsg24.com | A G-Series Company
Developed by Creativeers