অন্যান্য
  >
করোনাভাইরাস

বিশ্বে আক্রান্তের সংখ্যা ১৫ কোটি ৬৭ লাখের বেশি

নিউজজি ডেস্ক ৭ মে , ২০২১, ১০:৪৪:১৯

  • ছবি: ইন্টারনেট

ঢাকা: দুনিয়াজুড়ে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ১৫ কোটি ৬৭ লাখ ছাড়িয়েছে। প্রতিদিনই ছাড়িয়ে যাচ্ছে শনাক্ত ও মৃত্যুর রেকর্ড। দক্ষিণ এশিয়ার জনবহুল দেশ ভারতসহ বেশ কয়েকটি দেশ এখন করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে ঊর্ধ্বমুখী সংক্রমণে বিপর্যস্ত।

এখন পর্যন্ত সারাবিশ্বে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত হয়েছে ১৫ কোটি ৬৭ লাখ ৭ হাজার ৪৪৪ জন এবং মারা গেছে ৩২ লাখ ৬৯ হাজার ৮১৩ জন। বিশ্বে করোনায় আক্রান্তদের মধ্যে সুস্থ হয়েছে ১৩ কোটি ৪০ লাখ ৮৮ হাজার ৬৩৫ জন এবং বর্তমানে আক্রান্ত অবস্থায় রয়েছে এক কোটি ৯৩ লাখ ৬৮ হাজার ৩৫৬ জন।

বিশ্বে করোনায় আক্রান্তদের মধ্যে সুস্থ হওয়ার হার ৯৮ শতাংশ এবং মারা যাওয়ার হার দুই শতাংশ। সারাবিশ্বে বর্তমানে করোনায় আক্রান্তদের মধ্যে গুরুতর অবস্থায় রয়েছে এক লাখ ৯ হাজার ৩৪৩ জন এবং বাকিদের অবস্থা স্থিতিশীল।

বিশ্বে করোনায় আক্রান্তদের মধ্যে সুস্থ হওয়ার হার ৯৮ শতাংশ এবং মারা যাওয়ার হার দুই শতাংশ। সারাবিশ্বে বর্তমানে করোনায় আক্রান্তদের মধ্যে গুরুতর অবস্থায় রয়েছে এক লাখ ৯ হাজার ৩৪৩ জন এবং বাকিদের অবস্থা স্থিতিশীল।

বিশ্বে করোনায় ক্ষতিগ্রস্ত দেশের তালিকায় সবার ওপরে রয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। সে দেশে এখন পর্যন্ত করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত হয়েছে তিন কোটি ৩৩ লাখ ৬৯ হাজার ১৯২ জন এবং মারা গেছে পাঁচ লাখ ৯৪ হাজার ছয় জন।

বিশ্বে করোনায় ক্ষতিগ্রস্ত দেশের তালিকায় যুক্তরাষ্ট্রের পর যথাক্রমে রয়েছে ভারত, ব্রাজিল, ফ্রান্স, তুরস্ক, রাশিয়া, ব্রিটেন, ইতালি, স্পেন ও জার্মানি।

ভারতে এখন পর্যন্ত করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত হয়েছে দুই কোটি ১৪ লাখ ৮৫ হাজার ২৮৫ জন এবং মারা গেছে দুই লাখ ৩৪ হাজার ৭১ জন।  দেশটিতে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত হয়েছে চার লাখ ১৪ হাজার ৪৩৩ জন এবং মারা গেছে তিন হাজার ৯২০ জন।

সে দেশে এর আগের দিন করোনায় আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত হয়েছে চার লাখ ১২ হাজার ৬১৮ জন এবং মারা গেছে তিন হাজার ৯৮২ জন।

ভারতে করোনা আক্রান্তদের মধ্যে সুস্থ হয়েছে এক কোটি ৭৫ লাখ ৯৭ হাজার ৪১০ জন এবং আক্রান্ত অবস্থায় রয়েছে ৩৬ লাখ ৫৩ হাজার ৮০৪ জন। সে দেশে করোনায় আক্রান্তদের মধ্যে সুস্থ হওয়ার হার ৯৯ শতাংশ এবং মারা যাওয়ার হার এক শতাংশ।

ভারতের পরের অবস্থানে থাকা ব্রাজিলে মোট আক্রান্ত হয়েছে এক কোটি ৫০ লাখ ৯ হাজার ২৩ জন এবং মারা গেছে চার লাখ ১৭ হাজার ১৭৬ জন।

চতুর্থ স্থানে থাকা ফ্রান্সে এখন পর্যন্ত শনাক্ত হয়েছেন ৫৭ লাখ ২৮ হাজার ৯০ জন রোগী। এর মধ্যে মারা গেছেন ১ লাখ ৫ হাজার ৮৫০ জন। সুস্থ হয়েছেন ৪৭ লাখ ৮৬ হাজার ৭৫৪ জন।

শনাক্তের দিক দিয়ে এখন পঞ্চম স্থানে তুরস্ক। দেশটিতে এখন পর্যন্ত শনাক্ত হয়েছেন ৪৯ লাখ ৭৭ হাজার ৯৮২ জন। এর মধ্যে মারা গেছেন ৪২ হাজার ১৮৭ জন। সুস্থ হয়েছেন ৪৬ লাখ ২৬ হাজার ৭৯৯ জন। এ ছাড়া তালিকায় ষষ্ঠ স্থানে রাশিয়া, সপ্তম স্থানে যুক্তরাজ্য, অষ্টম স্থানে ইতালি, নবম স্থানে স্পেন এবং দশম স্থানে রয়েছে জার্মানি।

২০১৯ সালের ডিসেম্বরে চীনের উহানে প্রথম করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়। দেশটিতে করোনায় প্রথম রোগীর মৃত্যু হয় ২০২০ সালের ৯ জানুয়ারি। ওই বছরের ১৩ জানুয়ারি চীনের বাইরে প্রথম করোনা রোগী শনাক্ত হয় থাইল্যান্ডে। পরে ধীরে ধীরে বিভিন্ন দেশে ছড়িয়ে পড়ে।

এদিকে সংক্রমণ ও মৃত্যুর তালিকায় বাংলাদেশের অবস্থান ৩৩তম। দেশে এখন পর্যন্ত ৭ লাখ ৬৯ হাজার ১৬০ জন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছেন। এর মধ্যে মারা গেছেন ১১ হাজার ৭৯৬ জন। আর সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৭ লাখ ০২ হাজার ১৬৩ জন।

করোনা প্রাদুর্ভাবের পরিপ্রেক্ষিতে গত বছরের ৩০ জানুয়ারি বৈশ্বিক স্বাস্থ্য জরুরি অবস্থা ঘোষণা করে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)। গত বছরের ২ ফেব্রুয়ারি চীনের বাইরে করোনায় প্রথম কোনো রোগীর মৃত্যুর ঘটনা ঘটে ফিলিপাইনে। ওই বছরেরই ১১ মার্চ করোনাকে বৈশ্বিক মহামারি ঘোষণা করে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।

সূত্র : ওয়ার্ল্ডোমিটার

নিউজজি/এস দত্ত

 

পাঠকের মন্তব্য

লগইন করুন

ইউজার নেম / ইমেইল
পাসওয়ার্ড
নতুন একাউন্ট রেজিস্ট্রেশন করতে এখানে ক্লিক করুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

copyright © 2021 newsg24.com | A G-Series Company
Developed by Creativeers