অন্যান্য
  >
বিশ্বকাপ

৪৪ বছর পর গিলমোরের রেকর্ডের পাশে মোস্তাফিজ

শামীম চৌধুরী, লর্ডস ( লন্ডন) থেকে ৫ জুলাই , ২০১৯, ২০:৩৩:০৫

  • ৪৪ বছর পর গিলমোরের রেকর্ডের পাশে মোস্তাফিজ

লর্ডসের প্লেয়ার্স প্যাভিলিয়নে শাহাদত রাজিবের কৃতিগাঁথা লেখা আছে খোদাই করে। বৃহস্পতিবার অনুশীলন করতে এসে তা  দেখেছেন। ৯ বছর আগে টেস্টে শাহাদত রাজীবের ওই কৃতি অনার্স বোর্ডে খোদাই করে লেখা দেখেই হয়তবা মোস্তাফিজুর পেয়েছেন টনিক।

তা না হলে একদিবসীয় ক্রিকেটে উইকেটের সেঞ্চুরি থেকে যে ছেলেটি ২টি শিকার দূরে, সেই ছেলেটিই কেন ৫ উইকেট শিকার কবরবেন ? বিশ্বকাপের এক আসরে একাধিক ইনিংসে ৫টি করে উইকেটের রেকর্ড আছে মাত্র ৪ জনের।

১৯৭৫ বিশ্বকাপে অস্ট্রেলিয়ার গিলমোর,২০০৩ বিশ্বকাপে ওয়েস্ট ইন্ডিজের ড্রেকস,অস্ট্রেলিয়ার মিচেল স্টার্ক চলমান বিশ্বকাপে এমন রেকর্ড করেছিলেন শুধু। সেই রেকর্ডটা বাড়িয়ে নিলেন মোস্তাফিজ। তবে অস্ট্রলিয়ার বাঁ হাতি পেস বোলার গিলমোর ছাড়া কারো নেই উপর্যুপরি ২ ম্যাচে ৫ উইকেটের রেকর্ড।

১৯৭৫ বিশ্বকাপে লিপসে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে এবং পরের ম্যাচে লর্ডসে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ৫ উইকেটের ইনিংসে সেই রেকর্ডটির একমাত্র মালিক ছিলেন গিলমোর। গিলমোরকে সেই রেকর্ডে একা থাকতে দেননি মোস্তাফিজ।ভারতের বিপক্ষে এজবাস্টনে (৫/৫৯) এর পর লর্ডসে পাকিস্তানের বিপক্ষে ( ৫/৭৫) ! ৪৪ বছর পর গিলমোরের সেই রেকর্ডে ভাগ বসালেন মোস্তাফিজ 

উপর্যুপরি ২ ইনিংসে নামতা গুনে ৫টি শিকারে তিনটি রেকর্ডে গেছেন ঢুকে। দ্বিতীয় স্পেলের ৫ম বলে সেঞ্চুরিয়ান ইমাম উল হককে (১০০) হিট আউট করে শুরু মোস্তাফিজ বিস্ময়। পরের ওভারে হারিস সোহেলকে এক্সট্রা কভারে ক্যাচ দিতে বাধ্য করে একদিবসীয় ক্রিকেটে  বাংলাদেশ বোলারদের মধ্যে দ্রুততম সেঞ্চুরি করেছেন। ৪৮তম ওভারে সাদাবকে অবিশ্বাস্য রিটার্ন ক্যাচে পরিনত করে এবং ৫০ তম ওভারের ৪র্থ ও ৫ম বলে ইমাদ ও আমিরকে শিকারে পরিনত করে বিশ্বকাপ ইতিহাসে অন্য উচ্চতায় উঠে গেছেন মোস্তাফিজ। বিশ্বকাপের অভিষেক আসরে প্রথম বাংলাদেশী হিসেবে ২০ উইকেট।শুক্রবার ৫ ওভারের প্রথম স্পেলে মার খেয়ে (৫-০-৪০-০) শেষ স্পেলে ছড়িয়েছেন মোস্তাফিজ ভয়ংকর রূপ (৫-০-৩৫-৫) ! তাতেই হিরো মোস্তাফিজ। সাতক্ষীরার এই ছেলেটির শৈশবে ঘুম ভেঙেছে বাঘের গর্জন শুনে। নিজে বাঘ হয়ে সেই গর্জনে কাপিঁয়ে দিয়েছেন লর্ডস ! মোস্তাফিজের এমন বোলিংয়ে লর্ডসে স্লগে পাকিস্তানকে ভয়ংকর হতে দেয়নি বাংলাদেশ। শেষ ৬০ বলে মোস্তাফিজ-মিরাজ-সাইফউদ্দিনের কম্বিনেশনে ৪৭ রানে পাকিস্তানের ৭ উইকেট ফেলে দিয়েছে বাংলাদেশ ।তাতেই ইমামুলের সেঞ্চুরি (১০০), বাবর আজমের ৯৬'র পর ও ৩১৪/৯ এ থেমেছে পাকিস্তান।   

পাঠকের মন্তব্য

লগইন করুন

ইউজার নেম / ইমেইল
পাসওয়ার্ড
নতুন একাউন্ট রেজিস্ট্রেশন করতে এখানে ক্লিক করুন
copyright © 2021 newsg24.com | A G-Series Company
Developed by Creativeers