অন্যান্য
  >
বিশ্বকাপ

কোহলিকে পোড়াচ্ছে শুরুর ৪৫ মিনিট

ক্রীড়া ডেস্ক ১১ জুলাই , ২০১৯, ১০:৫৩:৩২

  • ছবি: স্কাই স্পোর্টস

মাঠের পারফরম্যান্সে এবারের বিশ্বকাপের শুরু থেকেই ভারত ছিল অপ্রতিরোধ্য। যদিও রাউন রবিন লিগে ইংল্যান্ডর কাছে হেরেছিল তারা। তারপরও বুধবার প্রথম সেমিফাইনালের রিজার্ভ ডে’তেও আকাশি জার্সিধারীরা ছিল ফেভারিট। কিন্তু সেই দলটিই নিউজিল্যান্ড পেসারদের শুরুর ৪০-৪৫ মিনিটের ছোবলে দিশেহারা হয়ে পড়ে। শেষ পর্যন্ত সেই ক্ষতি আর পুসিয়ে উঠতে পারেনি রবি শাস্ত্রীর শিষ্যরা। ম্যাচ শেষে তাই অধিনায়ক বিরাট কোহলিকে পোড়াচ্ছে ঐ সময়গুলো।

বুধবার ভারতের ফাইনালে উঠতে দরকার ছিল মাত্র ২৪০ রান। কিন্তু জবাব দিতে নেমে শুরুতেই বিরাট কোহলিদের টপ অর্ডার রীতিমতো উঠে যায় নিউজিল্যান্ড পেসার ট্রেন্ট বোল্ট ও ম্যাট হেনরির পেসে। ৫ রানের মধ্যেই সাজঘরে ফেরেন রোহিত শর্মা, লোকেশ রাহুল ও বিরাট। পাঁচে নামা দিনেশ কার্তিক ২০ বলে রানশূন্য থাকার পর পেয়েছিলেন প্রথম রানের দেখা। তার ভোগান্তি শেষ হয় ৬ রানে। ১০ ওভার শেষে ৪ উইকেটে ২৪ রান তুলে ভারত তখন ধুঁকছে। পরে অবশ্য রবীন্দ্র জাদেজা ও মহেন্দ্র সিং ধোনির লড়াইয়ে জয়ের সম্ভাবনাও জাগিয়েছিল দলটি। কিন্তু শেষ পর্যন্ত ১৮ রানের আপেক্ষ থেকেই যায় দু’বারে বিশ্ব চ্যাম্পিয়নদের।

হারের পেছনের মূল কারণ হিসেবে কোহলির মনে হয়েছে ব্যাটিং শুরুর ৪০-৪৫ মিনিট। ঐ সময়েই নাকি ম্যাচের দিক পাল্টে গিয়েছিল, ‘আমাদের ব্যাটিংয়ের প্রথম ৪০ মিনিটেই খেলা বদলে গেছে। নিউ জিল্যান্ডকে কৃতিত্ব দিতেই হবে। নতুন বলে নিখুঁত বোলিংয়ের প্রদর্শনী মেলে ধরে ওরা আমাদের বাধ্য করেছে ভুল করতে। প্রথম ৪০-৪৫ মিনিটের চাপ ছিল প্রবল। ৫ রানে ৩ উইকেট হারানোর পর ঘুরে দাঁড়ানো কঠিন। সেখান থেকে আমাদের চেষ্টা ছিল দারুণ। কিন্তু ওদের প্রথম স্পেলই পার্থক্য গড়ে দিয়েছে।’

এরআগে ২০১৫ বিশ্বকাপে অস্ট্রেলিয়ার কাছে হেরে সেমিফাইনাল থেকে বিদায় নিয়েছিল ধোনির ভারত। এবার অধিনায়ক কোহলি পেলেন সেই তেতো স্বাদ।

ফেভারিট তকমা নিয়ে শুরু করা ভারত শেষ পর্যন্ত সেমিফাইনাল থেকে বিদায় নিলো। ব্যাপারটি নিয়ে আফসোস হচ্ছে কোহলির। যা এ ডানহাতি লুকাতে পারেননি বুধবার সংবাদ সম্মেলনে, ‘অবশ্যই খুবই হতাশ। টুর্নামেন্ট জুড়ে আমরা অসাধারণ ক্রিকেট খেলেছি। স্রেফ ৪৫ মিনিটের বাজে ক্রিকেটে বিশ্বকাপ শেষ হওয়াটা দুঃখজনক। আমাদের হৃদয় ভেঙে গেছে। কারণ মোমেন্টাম গড়ে তুলতে আমরা প্রচণ্ড পরিশ্রম করেছি।’

কোহলি আরও বলেন, ‘পয়েন্ট টেবিলের এক নম্বরে থেকে শেষ করার পর (প্রাথমিক পর্বে) এক স্পেলের বাজে ক্রিকেটে টুর্নামেন্ট থেকে পুরোপুরি ছিটকে গেলাম। এখন মেনে নিতেই হবে। আগেও আমাদের সঙ্গে এসব হয়েছে। সেখান থেকে শিখে আমরা আরও ভালো ক্রিকেটার হয়ে উঠেছি। ৪০-৪৫ মিনিটের বাজে ক্রিকেট আমাদের ছিটকে দিয়েছে। এসব খেলারই অংশ।’

নিউজজি/সিআর

পাঠকের মন্তব্য

লগইন করুন

ইউজার নেম / ইমেইল
পাসওয়ার্ড
নতুন একাউন্ট রেজিস্ট্রেশন করতে এখানে ক্লিক করুন
copyright © 2021 newsg24.com | A G-Series Company
Developed by Creativeers