অন্যান্য
  >
বিশ্বকাপ

গেইলের ফেয়ারওয়েল ম্যাচে হিরো কোহলি

শামীম চৌধুরী ১৫ আগস্ট , ২০১৯, ১০:১৩:৩৭

  • গেইলের ফেয়ারওয়েল ম্যাচে হিরো কোহলি

ত্রিনিদাদে সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে গেইল,কোহলি দিয়েছেন নতুন মাইলস্টোনে পা। সিরিজের শেষ ম্যাচেও এই দু' মহা তারকাই আলোচনায়।ওয়ানডে ফেয়ারওয়েল ম্যাচে আলো ছড়িয়েছেন গেইল। গেইলের শেষ ম্যাচে সেঞ্চুরিতে হিরো কোহলি !  

 একদিবসীয় ক্রিকেটে লারাকে টপকে ক্যারিবিয়ান ক্রিকেট ইতিহাসে সবচেয়ে বেশি রানের মালিক হয়েছেন গেইল। কোহলি সেখানে সৌরভকে টপকে ভারত ক্রিকেট ইতিহাসে দ্বিতীয় সর্বাধিক রানের মালিক হয়েছেন সেই ম্যাচে। ওয়ানডে সিরিজের শেষ ম্যাচটির গুরুত্ব দিয়েছেন বাড়িয়ে গেইল।

ওয়ানডে ক্যারিয়ারের ফেয়ারওয়েল ম্যাচে ছড়িয়েছেন দ্যুুতি। চিরচেনা ব্যাটিংয়ে মাতিয়েছেন ত্রিদিদাদ। খলিলকে মিড অনের উপর দিয়ে ছক্কায় ৩০ বলে করেছেন ৫৪তম হাফ সেঞ্চুরি উদযাপন !

সেই খলিলকে ফরোয়ার্ড ড্রাইভ করতে যেয়ে মিড অফে ক্যাচ দিয়ে যখন ফিরেছেন, তখন তার স্কোর ৪১ বলে ৮ চার,৫ ছক্কায় ৭২ ! বিদায়ী ম্যাচে স্ট্রাইক রেট  ১৭৫.৬০ !  ব্যাটিং বিনোদনে নিজের নামকে একটি ব্রান্ডে রূপ দেয়া গেইল ২ দশকের ওয়ানডে ক্যারিয়ার থেমেছে।

থেমেছেন এই জ্যামাইকান একদিবসীয় ক্রিকেটে ক্যারিবিয়ানদের সবার উপরে উঠে ( ৩০১ ম্যাচে ২৫ সেঞ্চুরি,৫৪ ফিফটিতে ১০৪৮০ রান।১৯-এ শুরু করেছেন,  ৩৯ বছর বয়সে এসে থামলেন। শুরুটা করেছিলেন ভারতের বিপক্ষে, শেষটাও সেই ভারতের বিপক্ষে।

ফেয়ারওয়েল ম্যাচে যে ঝড় তুলেছিলেন গেইল, তাতে বিদায়ী ম্যাচে টিমমেটদের পক্ষ থেকে জয় উপহার দেয়াটাই ছিল স্বাভাবিক। কিন্তু ২২ ওভার শেষে বেরসিক বৃষ্টি গেইলকে সেই উপহার দেয়ার পথে প্রতিবন্ধকতা তৈরি করেছে। গেইল-ইভিন লুইসের ৬৫ বলে ১০৫ রানের পার্টনারশিপে বৃষ্টির আগে ২২ ওভারে ১৫৮/২ স্কোর-এর সঙ্গে  অবশিস্ট ১৩ ওভারে মাত্র ৮২ রান যোগ করতে পেরেছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। তাও সম্ভব হয়েছে পুরানের ১৬ বলে ৩০ রানে ! দারুন ভিত্তির উপর দাঁড়িয়েও হতাশ করেছেন সাই হোপ (৫২ বলে ২৪) ! ওয়েস্ট ইন্ডিজ থেমেছে ৩৫ ওভারে ২৪০/৭ এ। ডাকওয়ার্থ-লুইস মেথডে ৩৫ ওভারে ২৫৫'র কঠিন চ্যালেঞ্জ অনায়াসে পাড়ি দিয়েছে ভারত অধিনায়ক কোহলির সেঞ্চুরিতে ( ৯৯ বলে ১৪ বাউন্ডারিতে ১১৪ নট আউট)।

বিশ্বকাপে সেঞ্চুরিহীন কাটানোর যন্ত্রনা লাঘবে ত্রিনিদাদে উপর্যুপরি সেঞ্চুরি ! রোচকে সিঙ্গল নিয়ে ওয়ানডে ক্যারিয়ারে ৪৩ তম সেঞ্চুরি পূর্ন করতে খেলতে হয়েছে তাকে ৯৪ বল। চতুর্থ উইকেট জুটিতে শ্রেয়াসকে নিয়ে ১২০ রানে সহজ হয়েছে জয়টি। উপর্যুপরি ২য় ইনিংসে শ্রেয়াস হাফ সেঞ্চুরি করেছেন (৭১,৬৫)।

উপর্যুপরি ২য় ইনিংসে সেঞ্চুরি (১২০ও ১১৪*) তে সেঞ্চুরি রাজ শচীনের সিংহাসনটা দিয়েছেন কাঁপিয়ে কোহলি। আর মাত্র ৬টি সেঞ্চুরি করলেও শচীনের ৪৯ সেঞ্চুরিকে ফেলবেন ছুঁয়ে। ওয়ানডে ক্রিকেটে শচীন যেখানে ৪৬৩ ম্যাচে ৪৯ সেঞ্চুরিতে থেমেছেন, সেখানে ২৩৯ ম্যাচে কোহলির সেঞ্চুরি সংখ্যা ৪৩! ১০ হাজারী ক্লাবের সদস্যদের কারো গড় কোহলির (৬০.৩১) মতো নয় ! 

 আফগানিস্তানের বিপক্ষে লিডসে টিমমেটদের পক্ষ থেকে পেয়েছিলেন গেইল গার্ড অব অনার। বিশ্বকাপে ৩৫ ম্যাচে ১১৮৬ রানে ফেয়ারওয়েল ম্যাচে দর্শকের হৃদয় স্পর্শ করলেও বুক ভরা নি:শ্বাস নিতে পারেননি ক্রিস গেইল। ক্যালিপসো সুরে ওয়ানডে ক্যারিয়ার শেষ করতে তাই ছিলেন মুখিয়ে।

 ত্রিনিদাদে ভারতের বিপক্ষে ওয়্নডে সিরিজের শেষ ম্যাচে ৩০১ নম্বর জার্সি পরে নেমেছেন ব্যাটিংয়ে। নেমেই চেনা গেইল হাজির। ৬ষ্ঠ ওভারে মোহাম্মদ সামীর মাথা নষ্ঠ করে দিয়েছেন।প্রথম বলে ছক্কা,তৃতীয়,পঞ্চমও ৬ষ্ঠ বলে বাউন্ডারি !ওয়ানডে ক্রিকেটে টি-২০ আমেজ।৬ ইনিংস অপেক্ষার পর হাফ সেঞ্চুরি উদযাপনে এতোটাই রঙ ছড়িয়েছেন। এমন বর্ণাঢ্য ক্যারিয়ার শেষে ব্যাটের হ্যান্ডলের উপর হেলমেট নিয়ে তার ড্রেসিংরুমে ফেরার দৃশ্যটাও মনে রাখার মতো।টিমমেটদের পক্ষ থেকে সেরা উপহার না পেয়েও অতৃপ্তি নিয়ে শেষ করতে হয়নি তাকে।

পাঠকের মন্তব্য

লগইন করুন

ইউজার নেম / ইমেইল
পাসওয়ার্ড
নতুন একাউন্ট রেজিস্ট্রেশন করতে এখানে ক্লিক করুন
copyright © 2021 newsg24.com | A G-Series Company
Developed by Creativeers