খেলা

মোস্তাফিজ তোপে ছিন্ন ভিন্ন খুলনা

শামীম চৌধুরী নভেম্বর ২৮, ২০২০, ১৫:২৫:৪১

  • টিমমেটকে মোস্তাফিজের অভিনন্দন। এই মোস্তাফিজেই ছিন্ন ভিন্ন খুলনা।ছবি-বিসিবি

জেমকন খুলনা : ৮৬/১০ (১৭.৫ ওভারে)

নতুন বলে এক এন্ডে অফ স্পিনার নাহিদুল,অন্য এন্ডে পেসার শরীফুল-পর পর দুই ম্যাচে এই কৌশলে সফল গাজী গ্রুপ চট্টগ্রাম কোচ সালাউদ্দিন। সেরা অস্ত্র মোস্তাফিজকে ব্যাটিং পাওয়ার প্লে-এর শেষ ওভার (৬ষ্ঠ) এ পর পর দুই ম্যাচে এনেছেন।

ডেথ ওভারে প্রতিপক্ষকে আতঁকে দিতে মোস্তাফিজুরকে রেখেছেন বরাদ্দ। এই স্ট্র্যাটেজিতে প্রথম ম্যাচে মুশফিকুর রহিমের দল বেক্সিমকো ঢাকাকে ৮৮ রানে অল আউট করেছে গাজী গ্রুপ চট্টগ্রাম।

বৃহস্পতিবারের সেই কৌশলটা শনিবার প্রয়োগ করে সাকিব,মাহামুদউল্লাহ,ইমরুল,বিজয়ের দলকে ৮৬ রানে ইনিংস গুটিয়ে দিয়েছে গাজী গ্রুপ চট্টগ্রাম।মোস্তাফিজের দ্বিতীয় স্পেলের (২.৫-০-৩-৪) এতোটা দু:সহ পরিস্থিতিতে পড়েছে তারকা দল খুলনা। 

এই ম্যাচেও ব্যাটিং পাওয়ার প্লে-তে খুলনাকে হতশ্রী দেখিয়েছে (৩১/৩)। সাকিবকে রানে ফেরানোর জন্য ওপেনিংয়ে দিয়েছিলেন প্রমোশন। তবে বাংলাদেশের ক্রিকেটের পোস্টার বয় সাকিব আল হাসান তৃতীয় ম্যাচে আরো বেশি হতাশ করেছেন।নাহিদুলের প্রথম ওভারে বিজয় রান আউট হয়েছে,সাকিবের আত্মকেন্দ্রিক সিদ্ধান্তে। বিজয় স্ট্রাইক এন্ড থেকে দৌড়ে পৌছে গেছেন নন স্ট্রাইক এন্ডে। অথচ সাবিক দুই কদম দৌড়ে নিজের এন্ডে ফিরে আসাকে নিরাপদ মনে করেছেন ! ফিটনেস পরীক্ষা না দিয়ে বিশেষ সুবিধা পেলে তো এমনটাই হবে।

গাজী গ্রুপ চট্টগ্রামের অফ স্পিনার নাহিদুলের বলে এদিন সাকিবের আউটের দৃশ্যটা তার ভক্তদের পর্যন্ত দিয়েছে কষ্ট। নাহিদুলের শ্লোয়ার ডেলিভারিতে মিড অনের ফিল্ডার মোসাদ্দেকের হাতে ক্যাচ প্র্যাকটিসে থেমেছেন সাকিব (৭ বলে ৩ রান)।এভারে আউট হয়ে নিজের উপর বিরক্তি প্রকাশ পেয়েছে বিশ্বসেরা অল রাউন্ডারের অভিব্যক্তিতে।

তার ২টি ভুলে ঝটপট ২ উইেকেট পড়ে যাওয়ায় তারকা দল জেমকন পড়েছে বিপদের মুখে। সাকিবের ফিরে যাওয়ার ২ বল পর নাহিদুলকে ফ্লিক করতে যেয়ে মাহমুদুল্লাহ ফিরে এসেছেন এলবিডাব্লু হয়ে (২ বলে ১ রান)। ব্যাটিং পাওয়ার প্লে-র ৬ ওভারে জেমকন খুলনার স্কোর ৩১/৩ !    সেখান থেকে আর লড়াকু স্কোর করা সম্ভব হয়নি। 

তাইজুলকে পর পর ২ বলে চার,ছক্কা মেরে জহুরুল অমি লেট কাট করতে যেয়ে স্ট্যাম্পিংয়ে কাঁটা (১৪ বলে ১৪) পড়েছেন। তাইজুলের পরের ওভারে ইমরুল কায়েস ডিপ স্কোয়ার লেগে ক্যাচ দিয়ে (২৬ বলে ২১) ফিরে এসেছেন। ডেথ ওভারে কোয়ালিটি বোলার থাকলে যে ভয়ংকর রূপ ছড়ানো যায় না, আরিফুলের মতো বিপজ্জনক ব্যাটসম্যানের ব্যাটিং (৩০ বলে ১৫ রান) তা জানিয়ে দিয়েছে। ১৭ বলের শেষ স্পেলে ১৪টি দিয়েছেন ডট, এই স্পেলে মাত্র ৩ রান খরচায় ৪ উইকেট নিয়ে দেশ সেরা বোলার নিজের সক্ষমতা দিয়েছেন জানিয়ে।

পাঠকের মন্তব্য

লগইন করুন

ইউজার নেম / ইমেইল
পাসওয়ার্ড
নতুন একাউন্ট রেজিস্ট্রেশন করতে এখানে ক্লিক করুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

copyright © 2021 newsg24.com | A G-Series Company
Developed by Creativeers