খেলা

বন্দিদশা থেকে মুক্তির আনন্দ মিঠুনের

স্পোর্টস রিপোর্টার মার্চ ৩, ২০২১, ১৮:৫৬:৫৪

  • ক্রাইস্টচার্চের হোটেলে জিম এ বাংলাদেশ ক্রিকেটাররা। ছবি-বিসিবি

নিউজিল্যান্ড পৌছে কঠোর কোয়ারেন্টিন শর্ত পালন করতে হয়েছে বাংলাদেশ দলকে। ক্রাইস্টচার্চে এক সপ্তাহ হোটেলে বন্দিজীবনে তিনবার শুধু গ্রুপ করে স্বাস্থ্য বিধি মেনে টিম হোটেলের গার্ডেনে হাঁটা-হাঁটি করতে পেরেছে।

নিতে পেরেছে মুক্ত বাতাস। এই এক সপ্তাহে তিনবার করোনা পরীক্ষায় নেগেটিভ আসায় বুধবার থেকে হোটেলের জিম রুমে জিমের অনুমতি পেয়েছে বাংলাদেশ।

এক ভিডিও বার্তায় সে কথাই বলেছেন মোহাম্মদ মিঠুন-'প্রথম দিকে তো অনেক সীমাবদ্ধতা ছিল। আস্তে আস্তে হালকা হচ্ছে। আজ আমরা জিম করার অনুমতি পেয়েছি। এক সপ্তাহ পর জিম সুবিধা ব্যবহার করতে পেরে ভাল লাগছে খুব।'

তিনবার কোভিড-১৯ পরীক্ষা নেগেটিভ আসায় ৮ম দিন থেকে অনুশীলনে বাধা নেই বাংলাদেশ দলের। এটা ভেবেই দারুণ লাগছে মিঠুনের-'বেশি এক্সাইটেড। কারণ ঘরের মধ্যে থাকা অনেক কষ্টকর। কাল থেমে মাঠে যেতে পারব এই ব্যাপারটা ভাবতে ভাল লাগছে। কাল থেকে অনুশীলন শুরু হলে আশা করি সবই মানিয়ে নিতে পারব।'

বাংলাদেশে করোনাকালে জৈব সুরক্ষায় ২টি স্থানীয় ক্রিকেট টুর্নামেন্ট বিসিবি প্রেসিডেন্টস কাপ,বঙ্গবন্ধু টি-২০ কাপ এবং ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে পূর্নাঙ্গ সিরিজ চলাকালে মুক্তভাবে হাঁটা-চলা করতে পারেনি ক্রিকেটাররা। তবে নিউজিল্যান্ডে ১৪ দিনের কোয়ারেন্টিন শেষে মুক্তভাবে চলাফেরা করতে পারবে বাংলাদেশ দল। এটা জেনে খুশি-খুশি লাগছে মিঠুনের-'বাংলাদেশেও যতগুলো টুর্নামেন্ট হয়েছে হোটেল থেকে বের হওয়ার সুযোগ হয়নি। এখানে ভিন্ন, ১৪ দিন পরে আমরা একদম ফ্রি চলাচল করতে পারব। সেটা ভেবে ভাল লাগছে।  ১৪ দিন কষ্ট হলেও তারপরে আমরা বেশ মুক্তভাবে স্বাভাবিক জীবন যাপন করতে পারব। আর ১৪ দিন পর আমাদের যে স্বাভাবিক চলাফেরা শুরু হবে এটা অবশ্যই ইতিবাচক দিক। সবাই এটা উপভোগ করবে। কারণ গত এক বছর ধরে আমরা এই কোভিডের মধ্যে আছি। '

নিউজিল্যান্ডের কন্ডিশন বাংলাদেশের চেয়ে সম্পূর্ন আলাদা। এখানে ফেস করতে হবে পেস এবং বাউন্স। এই চ্যালেঞ্জের জন্য প্রস্তুত বাংলাদেশ দল। এমনটাই জানিয়েছেন মিঠুন-'এখানে খেলাটা চ্যালেঞ্জিং। কারণ এখানকার কন্ডিশন অনেক ভিন্ন আমাদের থেকে। এই ধরণের কন্ডিশনে সব সময় খেলার সুযোগ হয় না। সবাই জানে নিউজিল্যান্ডে নতুন বলটা খুব বেশি চ্যালেঞ্জিং হয়। নতুন বলটা যদি ভাল করে সামলাতে পারি তাহলে আশা করছি আগের চেয়ে অনেক ইতিবাচক ফল আসবে।'

নিউজিল্যান্ডের মাটিতে বাংলাদেশ কখনোই স্বাগতিক দলের বিপক্ষে জিততে পারেনি। এই অতীত মুছে দেয়ার সংকল্প বাংলাদেশ দলের। মিঠুন সে বার্তাই দিয়েছেন-'এটাকে আমরা অবশ্যই সুযোগ হিসেবে নিচ্ছি। আগে কি হয়ে গেছে সেটার চেয়ে সামনে কি করব সেটা নিয়ে ভাবছি, আর যেহেতু এবার অনেকদিন আগে এসেছি। অনেক অনুশীলন সুবিধা পাব। দলের সবাই চেষ্টা করব।'

পাঠকের মন্তব্য

লগইন করুন

ইউজার নেম / ইমেইল
পাসওয়ার্ড
নতুন একাউন্ট রেজিস্ট্রেশন করতে এখানে ক্লিক করুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

copyright © 2021 newsg24.com | A G-Series Company
Developed by Creativeers