বিদেশ

ছয় মাস পর যুক্তরাষ্ট্রে দৈনিক শনাক্ত লক্ষাধিক

নিউজজি ডেস্ক ৫ আগস্ট , ২০২১, ১৭:৫৮:৪৫

  • ছবি: ইন্টারনেট

ঢাকা: যুক্তরাষ্ট্রে ছয় মাসের মধ্যে দৈনিক সর্বোচ্চ কোভিড আক্রান্তের রেকর্ড হয়েছে। বুধবার দেশটিতে নতুন করে লক্ষাধিক মানুষের দেহে শনাক্ত হয়েছে করোনার সংক্রমণ। যেসব এলাকায় মানুষ টিকা নেননি, সেসব এলাকা প্রকোপ ছড়াচ্ছে অতিসংক্রামক ধরন ডেল্টা।

বিগত এক সপ্তাহে গড়ে প্রতিদিন ৯৪ হাজার ৮১৯ জন মানুষের সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে যুক্তরাষ্ট্রে। গত এক মাসেরও কম সময়ের মধ্যে দেশটিতে দৈনিক সংক্রমণ পাঁচ গুণ বেড়েছে। গত সাত দিনের পরিসংখ্যানে দেশটিতে করোনার ঊর্ধ্বমুখী সংক্রমণের বিষয়টি স্পষ্ট।

যুক্তরাষ্ট্র তথা বিশ্বের শীর্ষ সংক্রামক রোগ বিশেষজ্ঞ ডা. অ্যান্থনি ফাউসি স্থানীয় সময় বুধবার বলেছেন, ‘অতিমাত্রায় সংক্রামক করোনার ডেল্টা ধরনের কারণে আগামী সপ্তাহগুলোতে যুক্তরাষ্ট্রে দৈনিক সংক্রমণ দ্বিগুণ হয়েছে দিনে দুই লাখ করে মানুষ আক্রান্ত হতে পারেন।’

এক সাক্ষাৎকারে ফাউসি বলেন, ‘আগামী দিনগুলোতে যদি করোনার এমন একটি ধরনের প্রকোপ শুরু হয়, যেটা একইসঙ্গে অতিমাত্রায় সংক্রামক ও গুরুতর, তাহলে আমরা সত্যিই বড় সমস্যায় পড়ে যাবো।’ যারা টিকা নেননি তাদের টিকা নেওয়ার আহ্বান জানান তিনি।  

যুক্তরাষ্ট্রের রোগ নিয়ন্ত্রণ ও প্রতিরোধ কেন্দ্রের (সিডিসি) দেওয়া তথ্যের বরাতে ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, যুক্তরাষ্ট্রে প্রতিদিন নতুন করে যেসব রোগী শনাক্ত হচ্ছেন, তাদের ৮৩ শতাংশ ডেল্টায় সংক্রমিত। করোনা এই ধরনটি প্রথম শনাক্ত হয়েছিল ভারতে।

যুক্তরাষ্ট্রে শুধু সংক্রমণ নয় গত এক সপ্তাহের মধ্যে মৃত্যু ৩৩ শতাংশ বেড়েছে। গেল সপ্তাহে দৈনিক গড়ে ৩৭৭ জন করে করোনা আক্রান্ত মানুষের মৃত্যু হয়েছে দেশটিতে। হোয়াইট হাউসের কোভিড টাস্কফোর্স বলছে, করোনা আক্রান্ত গুরুতর রোগীর ৯৭ শতাংশ টিকা নেননি।

নতুন আক্রান্তের এক-তৃতীয়াংশ দেশটির তিন অঙ্গরাজ্য ফ্লোরিডা ও টেক্সাসের বাসিন্দা। দুই রাজ্যে টিকা নেওয়ার হারও কম। প্রেসিডেন্ট বাইডেন দুই রাজ্যের রিপাবলিকান নেতাদের মহামারি থেকে বের হয়ে আসতে প্রণীত জনস্বাস্থ্য নির্দেশনা মেনে চলার আহ্বান জানান।

নিউজজি/এস দত্ত

 

পাঠকের মন্তব্য

লগইন করুন

ইউজার নেম / ইমেইল
পাসওয়ার্ড
নতুন একাউন্ট রেজিস্ট্রেশন করতে এখানে ক্লিক করুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

copyright © 2021 newsg24.com | A G-Series Company
Developed by Creativeers